রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ০২:২২ পূর্বাহ্ন

প্রতিনিধি নিয়োগ-
ঢাকা সহ সারাদেশের প্রতিটি জেলা, উপজেলা, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে সংবাদদাতা নিয়োগ করা হবে। আগ্রহী প্রার্থীরা dailyalochitosokal@gmail.com এ সিভি প্রেরণ করার জন্য অনুরোধ করছি।
শিরোনাম:
ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্সের বিরুদ্ধে তদন্ত করে ২৫ কোটি ৩৪ লাখ ৪৫ হাজার ৬১ টাকার ভ্যাট ফাঁকির প্রমাণ পেয়েছে ভ্যাট গোয়েন্দা অধিদপ্তর

ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্সের বিরুদ্ধে তদন্ত করে ২৫ কোটি ৩৪ লাখ ৪৫ হাজার ৬১ টাকার ভ্যাট ফাঁকির প্রমাণ পেয়েছে ভ্যাট গোয়েন্দা অধিদপ্তর

ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্সের বিরুদ্ধে তদন্ত করে ২৫ কোটি ৩৪ লাখ ৪৫ হাজার ৬১ টাকার ভ্যাট ফাঁকির প্রমাণ পেয়েছে ভ্যাট গোয়েন্দা অধিদপ্তর। এ জন্য আজ বৃহস্পতিবার ইন্স্যুরেন্স প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে ভ্যাট আইনে মামলা করেছে ভ্যাট গোয়েন্দা।

ভ্যাট ফাঁকির সুনির্দিষ্ট অভিযোগ থাকায় ভ্যাট গোয়েন্দার উপ-পরিচালক মুনাওয়ার মুরসালীনের নেতৃত্বে একটি দল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির ২০১৩ সালের জানুয়ারি হতে ২০১৭ সালেল ডিসেম্বর পর্যন্ত তদন্ত করে। ভ্যাট গোয়েন্দার দল তদন্তের স্বার্থে দলিলাদি দাখিলের জন্য প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষকে তলব করে।এর পরিপ্রেক্ষিতে প্রতিষ্ঠান কর্তৃক দাখিল বার্ষিক সি.এ. রিপোর্ট, দাখিলপত্র (মূসক-১৯) এবং বিভিন্ন সময়ে প্রতিষ্ঠান কর্তৃক জমা ট্রেজারি চালানের কপি ও অন্যান্য দলিলাদি হতে প্রাপ্ত তথ্য-উপাত্তের আড়াআড়ি যাচাই করে প্রতিবেদন প্রস্তুত করা হয়।
এ প্রতিবেদন অনুযায়ী দেখা যায়, প্রতিষ্ঠানটি স্বাস্থ্য বিমার ওপর ১,০৯,৭৬,০০১ টাকা পরিশোধ করেছে। কিন্তু প্রতিষ্ঠানটির প্রদেয় ভ্যাটের পরিমাণ ছিল ৯,৭৮,৫১,৯৫৫ টাকা। এ ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানটি প্রকৃত বিক্রয় তথ্য গোপন করেছে। এতে অপরিশোধিত ভ্যাট বাবদ ৮,৬৮,৭৫,৯৫৪ টাকার ফাঁকি উদঘাটন করা হয়। এই ফাঁকির উপর ভ্যাট আইন অনুসারে মাস ভিত্তিক ২% হারে ১০,০১,১১,৮৫৩ টাকা সুদ হিসেবে প্রযোজ্য হবে।

তদন্ত অনুসারে নিরীক্ষা মেয়াদে সি.এ. ফার্মের রিপোর্ট মোতাবেক উৎসে ভ্যাট ৬,৩৪,০৭,৮০৩ টাকা পরিশোধ করেছে। কিন্তু প্রতিষ্ঠানটির প্রদেয় ভ্যাট এর পরিমাণ ছিল ৯,২২,৩৭,২৫২ টাকা। এক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানটির অপরিশোধিত ভ্যাট বাবদ ২,৯৫,০৮,৫৮৯ টাকার ফাঁকি উদঘাটিত হয়।

উৎসে কর্তনের ওপর প্রযোজ্য এই ফাঁকি ভ্যাটের ওপর ভ্যাট আইন অনুসারে মাসভিত্তিক ২% হারে ৩,৪৪,৮৯,৬৯৭ টাকা সুদ টাকা আদায়যোগ্য হবে।

অন্যদিকে, তদন্ত মেয়াদে প্রতিষ্ঠানটির স্থান ও স্থাপনার ভাড়ার বিপরীতে ৩,১৮,১৮,৬৯১ টাকা পরিশোধ করেছে। কিন্তু প্রতিষ্ঠানটির প্রদেয় ভ্যাটের পরিমাণ ছিল ৩,১৭,৫১,৫০৬ টাকা। এক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানটির অপরিশোধিত ভ্যাট বাবদ ১২,৪৯,৭১৯ টাকার ফাঁকি উদঘাটন করা হয়।

এই ফাঁকির উপরও ভ্যাট আইন অনুসারে মাসভিত্তিক ২% হারে ১২,০৯,২৫০ টাকা সুদ টাকা প্রযোজ্য হবে। বর্ণিত তদন্ত মেয়াদে প্রতিষ্ঠানটি সর্বমোট অপরিশোধিত ভ্যাটের পরিমাণ ১১,৭৬,৩৪,২৬২ টাকা এবং সুদ বাবদ ১৩,৫৮,১০,৭৯৯ টাকাসহ সর্বমোট ২৫,৩৪,৪৫,০৬১ টাকা রাজস্ব পরিহারের তথ্য উদঘাটিত হয়।

তদন্তে আরও দেখা যায়, প্রতিষ্ঠানটি সরকারের ভ্যাট ফাঁকির উদ্দেশ্যে নানা ধরনের জালিয়াতি ও মিথ্যার আশ্রয় নিয়েছে, যা ভ্যাট আইন অনুসারে শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

তদন্তে উদ্ঘাটিত পরিহারকৃত ভ্যাট আদায়ের আইনানুগ পরবর্তী কার্যক্রম গ্রহণের জন্য প্রতিবেদনটি কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট, ঢাকা উত্তরে পাঠানো হয়েছে। একইসঙ্গে সংশ্লিষ্ট মূসক সার্কেল, বিভাগীয় দফতর, কমিশনারেটকে প্রতিষ্ঠানের ওপর নিয়মিত নজরদারির জন্যও সুপারিশ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, মেসার্স ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড প্রতিষ্ঠানটি গুলশান -২ এ ডেল্টা লাইফ টাওয়ারে অবস্থিত। এর মূসক নিবন্ধন নং: ০০১৩২৩১০৩-০১০১।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি
Design & Developed BY SheraWeb.Com