বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ০১:০৩ অপরাহ্ন

প্রতিনিধি নিয়োগ-
ঢাকা সহ সারাদেশের প্রতিটি জেলা, উপজেলা, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে সংবাদদাতা নিয়োগ করা হবে। আগ্রহী প্রার্থীরা dailyalochitosokal@gmail.com এ সিভি প্রেরণ করে ০১৭১৫৫০৫২৪৪ নাম্বারে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করছি।
শিরোনাম:
সাংবাদিক বাহাউদ্দীন তালুকদারের জন্মদিনে বিভিন্ন মহলের শুভেচ্ছা জামালপুরে ইয়াবা উদ্ধারের চাঞ্চল্যকর মামলার যুক্তিতর্ক চলছে পরিকল্পনার অভাবে জলে যেতে বসেছে সরকারের কোটি কোটি টাকা রূপগঞ্জে মূর্তিমান আতংক ভূমিদস্যু ফয়েজ বাহিনীর খুঁটির জোর কোথায়? সরিষাবাড়ীতে ২ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার  আলফাডাঙ্গা সদর ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী আশিকের আলোচনা সভা ‘দুঃখিনী মায়ের গল্প’ গানে ব্যাপক সাড়া পাচ্ছে রোজিনা  আলফাডাঙ্গায় মুক্তিযোদ্ধার বাড়ি, দোকান, ভাংচুর স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ টাকা লুটপাট : থানায় মামলা বুড়াইচ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত‍্যাশী চেয়ারম্যান প্রার্থী আহসানউদ্দৌলা রানা’র উঠান বৈঠক বিএনপি-জামায়াতের নৈরাজ্যের প্রতিবাদে আলফাডাঙ্গায় বিক্ষোভ
ধর্ষণের ঘটনা ধামাচাপা দিতে ধর্ষকের সাথে ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা কিশোরীর বিয়ে 

ধর্ষণের ঘটনা ধামাচাপা দিতে ধর্ষকের সাথে ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা কিশোরীর বিয়ে 

মাসুদুর রহমান- জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে ধর্ষকের সাথে সপ্তম শ্রেণিতে পড়ুয়া(১২) ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা কিশোরীকে গত মঙ্গলবার  দুই সন্তানের জনকের সাথে বিয়ে দেওয়া হয়েছে । গত মঙ্গলবার  স্হানীয়  সালিশ বৈঠকের সিদ্ধান্তে উপজেলার মহাদান ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।
স্হানীয় ও ভুক্তভোগী  পরিবার সূত্রে জানা যায়, উপজেলার মহাদান  ইউনিয়নের  সেঙ্গুয়া গ্রামের লেবু মিয়ার ছেলে আল আমিন(৩০) এর সাথে একই গ্রামের চাঁন মিয়ার কন্যা সানাকইর শেখ খলিলুর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীর সাথে অবৈধ মেলামেশার ফলে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর গর্ভে বাচ্চা আসে। ঘটনাটি লোকমুখে ছড়িয়ে পড়লে ধামাচাপা দিতে স্হানীয়  মেম্বার আঃ রহিম বাদশা ভূঁইয়ার নেতৃত্বে স্হানীয় মাতাব্বর দলু মিয়ার সভাপতিত্বে সালিশ বৈঠকে উপস্হিত স্হানীয় মাতাব্বর ইসমাইল,বাঘা, বল্লা, হাবিবুর, ফারুক ভূঁইয়া , বন্দুক আলী ও নজরুল মুন্সির  চাপে মেয়ের বাবা ধর্ষকের সাথে মহাদান ইউনিয়নের কাজী আঃ রউফ লিপনের সহকারী কাজী সানাকইর টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিএম কলেজের অফিস সহকারী মোঃ ফজলুল হকের মাধ্যমে চার লক্ষ টাকা দেনমোহর ধার্য করে বিবাহটি নিবন্ধন করেন।বিবাহটি পড়ান স্হানীয় মৌলভী মোহাম্মদ আলী।
এ বিষয়ে কথা হলে মহাদান ইউনিয়নের কাজী মোঃ আব্দুর রউফ লিপন বলেন, আপনি আমার ভাই মোস্তাফিজুর রহমান লিটুর সাথে কথা বলেন।
সানাকইর টেকটিক্যাল এন্ড বিএম কলেজের অফিস সহকারী ও স্হানীয় কথিত সহকারী কাজী ফজলুল হক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন,আমি লিটু ভাইয়ের কাছ থেকে বই এনেছি এবং বাদশা মেম্বারের কথামত রেজিস্ট্রি করেছি।
এ ব্যাপারে আঃ রহিম বাদশা ভূঁইয়ার সাথে কথা হলে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন,আমি সহ স্হানীয়দেরকে নিয়ে বিয়ের কাবিন ও বিবাহ পড়াইয়া দিছি।তারা এখন ভালভাবে ঘর সংসার করিতেছে।
সরিষাবাড়ী থানার ওসি( তদন্ত) আব্দুল মজিদ বলেন,এ রকম কোন সংবাদ এখনো পায়নি।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি
Design & Developed BY SheraWeb.Com