রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১০:৩৩ অপরাহ্ন

প্রতিনিধি নিয়োগ-
ঢাকা সহ সারাদেশের প্রতিটি জেলা, উপজেলা, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে সংবাদদাতা নিয়োগ করা হবে। আগ্রহী প্রার্থীরা dailyalochitosokal@gmail.com এ সিভি প্রেরণ করার জন্য অনুরোধ করছি।
পূর্বের নিয়মে ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণের প্রস্তাবনা

পূর্বের নিয়মে ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণের প্রস্তাবনা

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় প্রাথমিক বাছাইয়ের মাধ্যমে নির্দিষ্ট সংখ্যক শিক্ষার্থীকে চূড়ান্ত পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসে পূর্বের নিয়মে পরীক্ষা গ্রহণের প্রস্তাবনা দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা পরিচালনা কমিটি। শনিবার (১ মে) বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা কমিটির এক সভায় এ প্রস্তাবনা দেওয়া হয় বলে কমিটির একাধিক সদস্য নিশ্চিত করেছেন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক অনুষদের ডিন বলেন, সম্প্রতি ভর্তি পরীক্ষার আবেদন সংক্রান্ত একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। বিজ্ঞপ্তিতে কিছু নিয়মের ব্যাপারে প্রশ্ন ওঠে। বিশেষ করে প্রাথমিক আবেদন থেকে বাছাই করে নির্দিষ্ট সংখ্যক শিক্ষার্থীকে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ দেওয়ার বিষয়টি ব্যাপকভাবে সমালোচিত হয়। এর প্রেক্ষিতে শনিবার কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা পরিচালনা কমিটির বৈঠক ডাকা হয়। বৈঠকে কমিটির সদস্যরা মানবিক দিক বিবেচনা করে সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসে পূর্বের নিয়মে ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণের প্রস্তাবনা দেন। তবে ভর্তি পরীক্ষা কোন নিয়মে হবে তা এখনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা পরিচালনা কমিটির পরবর্তী বৈঠকে পরীক্ষা পদ্ধতি নিয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

কবে নাগাদ কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা কমিটির পরবর্তী বৈঠক হতে পারে জানতে চাইলে সেই ডিন বলেন, সকলের সুচিন্তিত মতামতের জন্য এক সপ্তাহের সময় দেওয়া হয়েছে। আশা করা যায় আগামী সপ্তাহেই এ সভা অনুষ্ঠিত হবে। এর আগে, গত ২৯ এপ্রিল বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা পরিচালনা কমিটির ৫ম বৈঠকে ভর্তি পরীক্ষার আবেদনের তারিখ ও আবেদন প্রক্রিয়া নির্ধারন করা হয়।

 

বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, গাণিতিক ও পদার্থ বিষয়ক অনুষদ, সমাজবিজ্ঞান অনুষদ, কলা ও মানবিকি অনুষদ এবং জীববিজ্ঞান অনুষদে প্রাথমিক আবদনকারীদের উচ্চ মাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষায় প্রাপ্ত জিপিএর ভিত্তিতে ১৮ হাজার জন শিক্ষার্থীকে চূড়ান্ত পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ প্রদান করা হবে। এছাড়া বিজনেস স্টাডিস অনুষদ ও আইন অনুষদে ৯ হাজার করে করে শিক্ষার্থী এবং আইবিএ, আইআইটি, বঙ্গবন্ধু তুলনামূলক সাহিত্য ও সংস্কৃতি ইনস্টিটিউট ও সি-১ ইউনিটে (চারুকলা এবং নাটক ও নাট্যতত্ত্ব) ৪৫০০ জন শিক্ষার্থী চূড়ান্ত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি
Design & Developed BY SheraWeb.Com